স্বাগতম

মোদের গরব, মোদের আশা, আমরি বাংলা ভাষা |পৃথিবীর সর্বত্র ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা বাংলাভাষী মানুষের প্রতি আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাই!

বৃহস্পতিবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৬

মার্সারাইজেশন নিয়ে একাডেমিক ভুল ধারনা(Academic Misconception About Mercerization)



(অতিথি পোস্ট)
ছাত্র জীবনে আমরা একটি বিষয় সম্পর্কে ভুল ধারনা পেয়ে থাকি যে, সব কাপড়ে মার্সারাইজেশন করা হয় না, বায়ার যদি চায় তবেই মার্সারাইজেশন করা হয়।

হ্যা তথ্যটি ভুল । ফ্যাক্টরিতে এর কোন ভিত্তি নেই



মার্সারাইজেশন না করলে কিছু সমস্যা হয় সে গুলি হলোঃ

১. মার্সারাইজেশন করার পর ওভেন কাপড়ের এবজরবেঞ্চি বা শুশে নেয়ার ক্ষমতা বাড়ে।

২. মার্সারাইজেশন করা কাপড়ের ডাই পিক আপ, ব্লিচ করা কাপড়ের তুলনায় অনেক বেশি।

৩. শুধু মাত্র হোয়াইট করা হলে কাপড়ের মার্সারাইজেশন এর প্রয়োজন হয় না কারন হোয়াইট কাপড়ের সেড এমনকি আন ইভেন বা লেভেলিং এর সমস্যা নাই।

৪. অনেক ক্ষেত্রে ডিপ সেডের এর জন্য ডাবল মার্সারাইজেশন করা হয়, এতে সেড এর ডেপথ অনেক বেড়ে যায় সিংগেল টাইম মার্সারাইজেশন এর তুলনায়।

৫. বায়ার না চাইলেও আমাদের ডাইং এর লেভেলিং , ডেপথ সর্বোপরি কাপড় এর কোয়ালিটির জন্য হলেও মার্সারাইজেশনের প্রয়োজন।



৬. মার্সারাইজেশন ছাড়া কাপড় এর সাইনিং আর ব্রাইটনেস আনা সম্ভব না।


৭. মার্সারাইজেশন করা কাপড় এর টিয়ারিং টেনসাইল স্ট্রেনথ ব্লিচড ফেব্রিক থেকে বেশি। অর্থাৎ টেনে ছিড়তে অনেক বলের প্রয়োজন হবে ।

বামে মার্সারাইজ না করা এবং ডানে মার্সারাইজ করা ফাইবারের আনবিক্ষনিক চিত্র


পোস্ট দিয়েছেনঃ
                                          
                                                                Mazedul Shishir
                  
                                  Production officer woven dyeing at Intramex group (textile)
                                                              Courtesy: Textilelab

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

 

দর্শক সংখ্যা

বিজ্ঞাপন

যোগাযোগ Amitptec6th@gmail.com

সতর্কবার্তা

বিনা অনুমতিতে টেক্সটাইল ম্যানিয়ার - কন্টেন্ট ব্যাবহার করা আইনগত অপরাধ,যেকোন ধরণের কপি পেস্ট কঠোরভাবে নিষিদ্ধ এবং কপিরাইট আইনে বিচারযোগ্য !