স্বাগতম

মোদের গরব, মোদের আশা, আমরি বাংলা ভাষা |পৃথিবীর সর্বত্র ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা বাংলাভাষী মানুষের প্রতি আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাই!

বুধবার, ১৮ মার্চ, ২০১৫

গ্রে ফেব্রিক জি এস এম বনান ফিনিশড ফেব্রিক জি এস এম(Grey fabric GSM vs Finished fabric GSM)


সিঙ্গেল জার্সি ণিটিং ম্যাশিন

আমরা জানি ইয়ার্ণ কে নিটিং ম্যাশিনের সাহায্যে নিটিং করে ফেব্রিক পাওয়া যায় এবং তৈরি হওয়ার পর এটি
  বর্ণহীন থাকে, তাই একে গ্রে ফেব্রিক বলা হয়।তারপর এই গ্রে ফেব্রিক কে নিয়ে যাওয়া হয় ডাইং সেকশনে এখানে তাকে বাহ্যিক ও অভ্যন্তরীণভাবে পরিবর্তিত করা হয় এবং পরে প্রিন্টিং ও ফিনিশিং করে বিক্রয়ের জন্য প্রস্তুত করা হয়।

ডাইং ,প্রিন্টিং ও ফিনিশিং এর ফলে ফেব্রিকের GSM বেশ খানিকটা পরিবর্তিত হয়।তাই গ্রে ফেব্রিক ও ফিনিশ করা ফেব্রিকের GSM কখনই সমান থাকে না। গ্রে ফেব্রিকের GSM সাধারণত কম থাকে।GSM এর বৃদ্ধি পাওয়ার হার নির্ভর করে ফেব্রিকের অভ্যন্তরীণ গঠন ও নিটিং পদ্ধতির উপড়ে।একটা উদাহরণ দেয়া যাক,
ধরা যাক একটি সিঙ্গেল জার্সি ফেব্রিক তৈরিতে যে ইয়ার্ণ ব্যাবহৃত হয়েছে তা ছিল ৩০ কাউন্টের
যে ফেব্রিক প্রস্তুত করতে হবে তার GSM হবে ১৪৫
তাহলে গ্রে ফেব্রিকের GSM কে অবশ্যই ১৪৫ এর নিচে হতে হবে নয়ত তা কাঙ্ঘিত লক্ষের উপড়ে ফেব্রিক GSM তৈরি করবে।এখন প্রশ্ন হল গ্রে ফেব্রিকের GSM এর মান কত হলে আমরা পুরোপুরি ১৪৫ GSM ই পেতে সক্ষম হব ?

এটা বের করার জন্য যতটা না দরকার তাত্ত্বিক জ্ঞানের , তার চেয়ে অনেক বেশি দরকার ব্যাবহারিক কাজ করার অভিজ্ঞতা।ব্যাবহারিক অভিজ্ঞতায় দেখা গেছে যদি ৩০ কাউন্টের সূতা দিয়ে ফেব্রিক তৈরি করা হয়ে থাকে তাহলে ডাইং ও ফিনিশিং এর পরে তার জি এস এম গ্রে ফেব্রিক থেকে ১৫ থেকে ২০ শতাংশ পর্যন্ত বেড়ে যায়।

এখন যদি আমাদের কোন ৩০ কাউন্টের সূতা থেকে ১৪৫ GSM এর কাপড় বানাতে হয় তাহলে আমাদের মনে রাখতে হবে গ্রে ফেব্রিকের GSM কোনভাবেই যেন ={১৪৫-(১৫ থেকে ২০%)= ১৮% ধরা হল}=১৪৫ ×{১৪৫×(১৮/১০০)}=১১৯ এর উপড়ে না হয়।

এ বিষয়ে কয়েকটি তালিকা নিচে দেয়া হল-
৩০ কাউন্টের সূতা ব্যাবহার করলে ফিনিশ থেকে গ্রে ফেব্রিকের জি এস এম এর তারতম্য হবে ১৫ থে ২০ শতাংশ
২৬ কাউন্টের সূতা ব্যাবহার করা হলে তা গিয়ে দাঁড়াবে ২০-২২ শতাংশে
২৪ কাউন্টের জন্য ২৩-২৪ শতাংশে
এবং ২০ কাউন্টের জন্য ২১-২৪ শতাংশে

এবার আসা যাক ইয়ার্ণ থেকে গ্রে ফেব্রিকে জি এস এম কিভাবে পরিবর্তিত হয় ?

এখানে এদের মধ্যকার সম্পর্ক একটি সমীকরণের সাহায্যে ব্যাখ্যায়িত
GSM  α  ইয়ারন কাউন্ট × স্টিছ লেনথ

SL(stitch length): কাপড়ের মধ্যে পাশাপাশি দুটি নিডেল লুপের মধ্যকার দুরুত্ব কে stitch length বলে । স্টিছ লেন্থের উপড় কাপড়ের ওজোন ও ডইমেনশন নির্ভর করে । stitch কাউন্টারের সাহায্যে দৈর্ঘ্য বরাবর ১০০ টি wales এর দৈর্ঘ্য মিলিমিটার এককে বের করতে হয় ।
ঢিলা প্রকৃতির ফেব্রিকের লুপের দৈর্ঘ্য বড় হয় , আর লুপের দৈর্ঘ্য বড় মানেই GSM কমে যাওয়া।
অন্যদিকে কঠিন ও শক্ত জাতীয় ফেব্রিকের বেলায় লুপের দৈর্ঘ ছোট হয় এবং GSM বেশি ।
এসম্পর্কিত আরও একটি সুত্র দেখে নেয়া যাক
X =332-5.88 Y
এখানে x কে GSM ধরতে হবে এবং y কে ইয়ারন কাউন্ট ।


গ্রে ফেব্রিক

ফিনিশিং এর পরে ফেব্রিক

এর পর আসা যাক কিভাবে নিটিং পদ্ধতিতে নিয়ন্ত্রন এনে কাপড়ের GSM নিয়ন্ত্রন করা যাবে?

নিটিং এমন একটি ফেব্রিক তৈরির পদ্ধতি যেখানে এক লুপ থেকে আরেকটি লুপ বের করা হয়, এভাবে বুনানোর ফলে লুপস্টিছ এর উৎপত্তি হয়।ওয়েফট নিটিং পদ্ধতিতে লুপ গুলো একের পর এক অনুভূমিক রেখা তৈরি করে চলে।সিঙ্গেল জার্সি এমনই একটি ফেব্রিক যা তৈরিতে নিটিং ম্যাশিনে এক সেট নিডেলের ব্যাবহার হয়।

জি এস এম নিয়ন্ত্রন করতে হয়তো মোটা কাউন্টের ইয়ার্ণ নিতে হবে নয়ত কাউন্টের পরিমান ঠিক রেখে শুধু  প্রতি ইঞ্চিতে স্টিছের সংখ্যা বাড়াতে হবে।লুপের দৈর্ঘ কমিয়ে অথবা হাইয়ার গেজের ম্যাশিন ব্যাবহার করে স্টিছের পরিমান বৃদ্ধি করা যায়।আধুনিক ওয়েফট নিটিং ম্যাশিনে একটি ধনাত্মক ফিডার যা ভি.ডি.কিউ পুলি(VDQ pully) দ্বারা নিয়ন্ত্রিত , একে যাকে IRO  বলে। IRO এর  সাহায্যে ম্যাশিনে ইয়ার্ণ প্রবেশ করে ।যদি IR এর গতি বাড়ানো  হয় তাহলে বেশি পরিমাণে ইয়ার্ণ ম্যাশিনে ঢুকবে এবং সুতার সঞ্চালন বৃদ্ধি পাবে , আর ম্যাশিনে সুতার পরিমান বেশি হলে লুপের আকারও বৃদ্ধি পাবে এবং কাপড়ের GSM কমে যাবে।




কনসেপ্ট ক্লেয়ার করতে জি এস এম সম্পর্কিত আরেকটি পোস্ট পড়ে দেখতে পারেন

GSM ক্যালুলেশন(GSM Calculation)

৪টি মন্তব্য:

 

দর্শক সংখ্যা

বিজ্ঞাপন

যোগাযোগ Amitptec6th@gmail.com

সতর্কবার্তা

বিনা অনুমতিতে টেক্সটাইল ম্যানিয়ার - কন্টেন্ট ব্যাবহার করা আইনগত অপরাধ,যেকোন ধরণের কপি পেস্ট কঠোরভাবে নিষিদ্ধ এবং কপিরাইট আইনে বিচারযোগ্য !