স্বাগতম

মোদের গরব, মোদের আশা, আমরি বাংলা ভাষা |পৃথিবীর সর্বত্র ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা বাংলাভাষী মানুষের প্রতি আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাই!

শুক্রবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৪

টেক্সটাইল ডাইং অগজিলারিস(Textile Dye Auxilaries)



ফাইবারকে আকর্ষণীয় ও ব্যাবহার উপযোগী করে তুলতে বিপুল সংখ্যক জৈব অজৈব পদার্থ ব্যাবহার করতে হয়  যেমনঃ-

 

1.ডিটারজেন্ট :   টেক্সটাইল ম্যাটেরিয়াল থেকে তেল,ফ্যাট,নোংরা দূর করতে ডিটারজেন্ট ব্যাবহার করা হয় । যেমন Fixanal

2.ইমালসিফাইয়ার : পানি সাথে তেলের মিশ্রণ তৈরিতে ইমালসিফাইয়ার ব্যাবহৃত হয় ।

3.সাইজ কম্পোনেন্ট : ওয়ারপ ইয়ার্ণে আঠালো আচ্ছাদন দিতে যে উপাদানগুলো ব্যাবহার করতে হয় তাকে সাইজ কম্পোনেন্ট বলে ।
যেমন স্টার্চ,জিং ক্লোরাইড ,ক্যালসিয়াম ক্লরাইড,মেগ্নেসিয়াম ক্লোরাইড ইত্যাদি ।


4.ডিসাইজিং কম্পোনেন্ট : কাপড় থেকে সাইজ কম্পোনেন্টকে দূর করতে ডিসাইজ কম্পোনেন্ট বাবহ্রিত হয় । যেমন এনজাইম, এলকালি ।

5.লেভেলিং এজেন্ট : ডাই ম্যাটেরিয়ালের দ্রাব্যতা বৃদ্ধিকরণে এবং কাপড়ের মধ্যে যাতে সহজে ডাই ম্যাটেরিয়াল প্রবাহিত হতে পারে সেজন্য লেভেলিং এজেন্ট ব্যাবহার করতে হয় ।

6.ডাই ক্যারিয়ার : কাপড়ে ডাই ম্যাটেরিয়াল প্রবেশের জন্য ডাই ক্যারিয়ার ব্যাবহার করা প্রয়োজন ।এটি পানিতে দ্রবণীয় কেমিক্যালের গ্লাস ট্রাঞ্জিশন মাধ্যমে ফাইবারে এর প্রবেশ্যতা বাড়ায় । সাধারণত তুলনামুলক শক্ত ফাইবার যেমন পলিএস্টারের ক্ষেত্রেই এটি বাবহ্রিত হয়ে থাকে যেমন ট্যানিক এসিড

7.ডাই ফিক্সিং এজেন্ট : এটি ফাইবার ও ডাই ম্যাটেরিয়ালের মাঝে সমযোজী বন্ধন সৃষ্টি করে । রিএক্টিভ ডাই এর ওয়াশিং ফাস্টনেস বৃদ্ধিকরণেও এটি ব্যাবহার করা যেতে পারে । যেমন টারটার ইমেটিক দ্রবণ

8.রাবিং ফাস্টনেস ইম্প্রুভার : কাপড়ের রঙ ধরে রাখার ক্ষমতা বাড়ায় এবং ঘর্ষণ প্রতিরোধী করে ।

9.থিকেনার : থিকেনারের ব্যাবহার প্রিন্টিং এর একটি প্রধান অংশ । প্রিন্টিং পেস্ট তৈরি করতে থিকেনারে প্রয়োজন হয় । সাধারণত স্টার্চ ও পানির মিলনে থিকেনারের আঠালো অংশ তৈরি করা হয় । যেমন পটেটো পেস্ট,রাইস, কার্বোক্সি মিথাইল সেলুলোজ ইত্যাদি ।


10.হাইগ্রোস্কোপিক এজেন্ট :  হাইগ্রোস্কোপিক এজেন্ট কাপড়ের মইসচার থেকে পানি শোষণ করে নিতে পারে তাই কাপড় থেকে অতিরিক্ত পানি সরিয়ে নিতে হাইগ্রোস্কপিক এজেন্ট প্রয়োগ করা হয়  । যেমন ক্যালসিয়াম ক্লোরাইড

11.অক্সিডাইজিং ও রিডিউসিং এজেন্ট : যে সব এজেন্ট জারন বিজারন বিক্রিয়ায় অন্য মৌল থেকে ইলেকট্রন অপসারণ করে তাকে জারিত করে তাকে অক্সিডাইজিং এজেন্ট বলে । যেমন H2O2,H2SO4,HNO3
যে সব এজেন্ট জারন বিজারন বিক্রিয়ায় অন্য মৌলকে ইলেকট্রন প্রদান করে তাকে বিজারিত করে তাকে রিডিউসিং  এজেন্ট বলে ।যেমন Na2S,LiAl4

12.ডিফোমিং বা ফেনা প্রতিরোধী এজেন্ট : ডাইং এর সময় বিভিন্ন কেমিক্যালের প্রভাবে যে ফেনার তৈরি হয় তাতে ডাইং প্রক্রিয়া বিঘ্নিত হতে পারে এজন্য  ডিফোমিং এজেন্ট ব্যাবহার করা হয় যা ফেনা সৃষ্টি রোধ করে । যেমন ডিফোমার,এন্টি ফোম

13.সফটেনিং এজেন্ট : কাপড়কে সফট করতে যোগ করা হয় । যেমন ক্যাস্ট্রল অয়েল,পেরাফিন ইত্তাদি
ওয়াটার

14. ওয়াটার প্রুফিং এজেন্ট : এটি কাপড় কে সম্পূর্ণভাবে পানি প্রতিরোধী করতে পারে । যেমন প্লাস্টিক,রাবার,পেইন্টস ইত্যাদি

15.এন্টি মিল্ডিও এজেন্ট : বিভিন্ন মাইক্রুরগানিজম থেকে কাপরকে রক্ষা করে ।

16.মথপ্রুফিং এজেন্ট : কাপড় কে কীটপতঙ্গ প্রতিরোধী করতে নেপথলিন জাতীয় কেমিক্যাল প্রয়োগ করা হয় ।



17.ওয়েটিং এজেন্ট : কাপড় কে ভারী করে তুলতে সাহায্য করে যেমন ক্যালসিয়াম কার্বনেট ।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

 

দর্শক সংখ্যা

বিজ্ঞাপন

যোগাযোগ Amitptec6th@gmail.com

সতর্কবার্তা

বিনা অনুমতিতে টেক্সটাইল ম্যানিয়ার - কন্টেন্ট ব্যাবহার করা আইনগত অপরাধ,যেকোন ধরণের কপি পেস্ট কঠোরভাবে নিষিদ্ধ এবং কপিরাইট আইনে বিচারযোগ্য !